কৈখালী ইউপির নির্বাচিত চেয়ারম্যানের শপথ গ্রহণ

কর্তৃক ferozsatkhira
০ মন্তব্য 67 ভিউজ

গাজী নুরুল আমিন, কৈখালী (শ্যামনগর) প্রতিনিধি:
সাতক্ষীরা জেলার শ্যামনগর উপজেলার ০৫নং কৈখালী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে গত ২৬শে ডিসেম্বর২০২১ নির্বাচিত চেয়ারম্যান শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে বৃহস্পতিবার চেয়ারম্যান জনাব শেখ আব্দুর রহিমকে শপথ বাক্য পাঠ করান জেলা প্রশাসক মো. হুমায়ুন কবির

উল্লেখ্য, গত ২৬শে ডিসেম্বর সারা দেশের ন্যায় চতুর্থ
ধাপে সাতক্ষীরা জেলার শ্যামনগর উপজেলার কৈখালী ইউনিয়ন সহ নয়টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়।
শ্যামনগর উপজেলার আটটি নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান হিসাবে ১৪ই ফেব্রুয়ারি ২০২২ শপথ গ্রহণ করেন।
কিন্তু ৫ নং কৈখালী ইউনিয়ন পরিষদের টানা দুই বারের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান, শেখ আব্দুর রহিম ৯ই ফেব্রুয়ারি গ্রেপ্তার হবার কারণে, ১৪ই ফেব্রুয়ারি শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগদান করতে পারেন নাই, চেয়ারম্যান শেখ আব্দুর রহিমের পক্ষে তাঁর বড় ভাই শেখ আব্দুর রহমান জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় প্যারালে মুক্তির আবেদন করেন। পরবর্তীতে আবেদনটি প্রসেসিং থাকা অবস্থায়, গত দশ-ই মার্চ ২০২২ চেয়ারম্যান শেখ আব্দুর রহিম জামিনে মুক্তি পায়।
পরবর্তীতে শপথ চেয়ে হাইকোর্টে একটি আবেদন করেন চেয়ারম্যান শেখ আব্দুর রহিম।হাইকোর্টের আদেশ চেয়ারম্যানের শপথ গ্রহণের পক্ষে আসে।
পরবর্তীতে সে আদেশের বিরুদ্ধে অত্র ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী গাজী শাহ আলম, সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের স্তগিত চেয়ে একটি আবেদন করেন, পরবর্তীতে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে শুনানি শেষে গাজী শাহ আলমের আবেদনটি খারিজ করে দিয়ে পূর্বের আদেশ বহাল রাখেন।
এবং সাত দিনের ভিতরে জেলা প্রশাসককে শপথ পড়ানোর আদেশ প্রদান করেন।
তার পরিপ্রেক্ষিতে আজ ৭ই জুলাই ২০২২ বৃহস্পতিবার সকাল ৯ টায়, জেলা প্রশাসকের কক্ষে
শপথ বাক্য পাঠ করান জেলা প্রশাসক মোঃ হুমায়ুন কবির, শপথ গ্রহণের প্রাক্কালে নব নির্বাচিত চেয়ারম্যানের উদ্দেশ্যে দিক নির্দেশনামূলক বক্তব্য রাখতে গিয়ে জেলা প্রশাসক মোঃ হুমায়ুন কবির বলেন, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হিসাবে সকল কার্যক্রমে আপনাকে নিরপেক্ষতা বজায় রাখতে হবে। ইউনিয়নের সার্বিক আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে দায়িত্ব নিতে হবে, নাগরিকদের ভালোভাবে সেবা দিতে হবে। আপনার মাধ্যমে আমরা যেন নাগরিক সেবার মান বাড়াতে সরকারের উন্নয়নমূলক কার্যক্রম ভালোভাবে বাস্তবায়ন করতে পারি।

এ সময় অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট,মাশরুবা ফেরদৌস।
প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ায় কর্মরত গণমাধ্যকর্মীসহ জেলা প্রশাসনের বিভিন্ন দফতরের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সম্পর্কিত পোস্ট

মতামত দিন