জমে উঠেছে শেষ মূহুর্তের জেলা বাস মিনিবাস শ্রমিক ইউনিয়নের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন

কর্তৃক ferozsatkhira
০ মন্তব্য 124 ভিউজ

নিজস্ব প্রতিনিধি : জমে উঠেছে শেষ মূহুর্তের সাতক্ষীরা জেলা বাস মিনিবাস কোচ, মিনি বাস, মাইক্রোবাস শ্রমিক ইউনিয়ন দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন। নির্বাচনকে ঘিরে প্রচার প্রচারণায় এখন মুখর সাতক্ষীরার কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল এলাকা। আগামী ০২ এপ্রিল শনিবার অনুষ্ঠিত হবে নির্বাচন। ইতিমধ্যে নির্বাচনে পরাজয় ভেবে নির্বাচন বন্ধ করতে একটি গ্রুপ থেকে সাবেক সভাপতি শেখ রবিউল ইসলাম বাদী হয়ে অনিয়ম-দূর্নীতি, ভোটার তালিকাসহ নির্বাচনী বিভিন্ন বিষয়ে অভিযোগ এনে সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. জাহিদুর রহমানের বিরুদ্ধে ২৪/০৩/২০২২ তারিখে খুলনা শ্রম আদালতে মামলা করে। মামলা নং- শ্রম ১৬/২০২২। খুলনা শ্রম আদালত লিখিত অভিযোগ পর্যালোচনা করে বিবাদী সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মো. জাহিদুর রহমানকে ২৯/০৩/২০২২ তারিখে কারণ দর্শাইবার নোটিশ করে। গত ২৯/০৩/২০২২ তারিখে খুলনা শ্রম আদালত আনিত অভিযোগ পর্যালোচনা করে অভিযোগের কোন সত্যতা না পেয়ে উক্ত মামলা খারিজ করে দেয়। যে কারণে নির্বাচনের আর কোন বাঁধা না থাকায় শুরু হয় ব্যাপকভাবে প্রচার প্রচারণা। পোস্টার আর ব্যানারে ছেয়ে গেছে পুরা বাস টার্মিনালসহ আস পাশের জনপদ। ভোটারদের বহুমুখী আবদার। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত ভোটারদের ঘরে ঘরে যাচ্ছেন ও গণসংযোগ চালাচ্ছেন প্রার্থীরা। প্রতীক বরাদ্দ দেওয়ার পর থেকেই তারা প্রচার প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছেন। ভোটারদের মন জয় করতে দেওয়া হচ্ছে নানা প্রতিশ্রুতি। বৃহস্পতিবার (৩১ মার্চ) সাতক্ষীরা কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালসহ নির্বাচনী এলাকার আস পাশের এলাকা ঘুরে দেখা গেছে এ চিত্র। আগামী ০২ এপ্রিল শনিবার সাতক্ষীরা জজ কোর্ট প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হবে এ নির্বাচন। সকাল ৮টা হতে বিরতিহীনভাবে ভোট গ্রহণ চলবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ২১৩৪ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব পালন করছেন সাইদ হোসেন। মূলত দু’টি প্যানেলে ২১টি পদে লড়ছেন ৬৮ জন প্রার্থী। এছাড়াও কয়েকজন স্বতন্ত্র পদে লড়ছেন। সভাপতি পদে লড়ছেন ৪ জন-মো. আরশাদ আলী খোকার প্রতিক- হরিণ, মীর মনিরুজ্জামান প্রতিক- চেয়ার, আবু তালেব প্রতিক- আনারস ও নজরুল ইসলাম প্রতিক- বাস। সাধারণ সম্পাদক পদে লড়ছেন ৩ জন প্রার্থী- মো. জাহিদুর রহমান প্রতিক- ছাতা, মো. মামুনার রশিদ প্রতিক টেলিভিশন ও মো. জাকির হোসেন টিটু প্রতিক-শাপলা। ভোটার সাইফুল ইসলাম বলেন, যোগ্য সৎ প্রার্থীকেই আমরা ভোট দেবো। তাকেই আমরা নির্বাচিত করবো যে সুখে দুঃখে শ্রমিকদের পাশে থাকবেন।

সম্পর্কিত পোস্ট

মতামত দিন