তালায় একইদিনে ৪ কিশোরীর বাল্যবিবাহে নিষেধাজ্ঞা জারি!

কর্তৃক ferozsatkhira
০ মন্তব্য 35 ভিউজ

তালা প্রতিনিধিঃ
তালা উপজেলার পল্লীতে একইদিনে ৪কিশোরীর বাল্যবিবাহে নিষেধাজ্ঞা জারি এবং অমান্য করলে একটি পরিবারের ভিজিডি কার্ড বাতিল করার সিদ্ধান্ত দেয় ভ্রাম্যমান আদালত। সোমবার (১০ অক্টোবর) বিকালে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও তালা উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রশান্ত কুমার বিশ্বাস এ আদেশ জারী করেন। এদিকে উক্ত নিষেধাজ্ঞা ভঙ্গ করলে প্রত্যেক কিশোরীর পরিবারকে ৬ মাসের কারাদণ্ড এবং ১০ হাজার টাকা করে আর্থিক জরিমানা করা হবে।

তালা উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নাজমুন নাহার বলেন, সোমবার তালা উপজেলার কুমিরা পাইলট মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির ছাত্রী (বয়স: ১৪ বছর ২৮ দিন) নোয়াকাটি গ্রামের বাসিন্দা, একই বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণির ছাত্রী (বয়স: ১৫ বছর ০১ মাস ০২ দিন) নোয়াকাটি গ্রামের বাসিন্দা এবং এজেএইচ মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী (বয়স: ১১ বছর ০৯ মাস ০৯ দিন) হাজরাকাটী গ্রামের বাসিন্দা কিশোরীর বাল্যবিবাহের প্রস্তুতি চলছিল। এছাড়া জালালপুর গ্রামের কিশোর কিশোরী ক্লাবের ছাত্রী জাগরণী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণির ছাত্রীর (বয়স: ১৫ বছর ০৪ মাস) বাল্যবিবাহ সম্পন্ন হয়েছে এমন খবর তাদের কাছে আসে। পরে তাদের অভিভাবকদের ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও তালা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে আনা হয়। এ সময় ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী প্রশান্ত কুমার বিশ্বাস উক্ত নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। উক্ত নিষেধাজ্ঞা অমান্য করলে একটি পরিবারের ভিজিডি কার্ড বাতিল করার সিদ্ধান্ত দেয় ভ্রাম্যমান আদালত। এ সময় সকল কিশোরীর অভিভাবকগণ লজ্জিত, দুঃখিত এবং অনুতপ্ত হয়ে এ সময় মুচলেকা প্রদান করেন।

তালা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রশান্ত কুমার বিশ্বাস বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, বাল্যবিবাহ কোনোভাবেই মেনে নেওয়া হবে না। অত্র উপজেলায় বাল্যবিবাহের কোনো ঘটনা ঘটলে সংশ্লিষ্ট পরিবারের অভিভাবক, বর, আয়োজক ও কাজিকে আইনের আওতায় আনা হবে।

সম্পর্কিত পোস্ট

মতামত দিন