নিজস্ব প্রতিনিধি: সাতক্ষীরার দেবহাটায় আমবাগান থেকে তাছলিমা খাতুন (৪০) নামের এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তিনি উপজেলার সদর ইউনিয়নের বসন্তপুর গ্রামের আজিবর রহমান ওরফে আজু’র স্ত্রী। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে আমবাগানে কাপড় দিয়ে মুখ ঢাকা অবস্থায় লাশটি পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা দেবহাটা থানায় খবর দিলে পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাশটি উদ্ধার সহ সনাক্তের পর ময়না তদন্তের জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেন। লাশটির মাথা ও মুখমন্ডলে জমাটবাঁধা রক্ত ও আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ভারী কোনো বস্তু দ্বারা মাথা ও মুখমন্ডলে আঘাত জণিত রক্তক্ষরণের কারনে ওই নারীর মৃত্যু হয়েছে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারনা পুলিশের।
এলাকাবাসী জানায়, বেশ কিছুদিন যাবৎ তাছলিমার সাথে তার স্বামী আজিবরের সাংসারিক কলহ চলে আসছিল। আজিবর বিভিন্ন সময়ে তার স্ত্রীকে মারপিটও করতো। সম্প্রতি সাংসারিক কলহের জের ধরে তাছলিমা তার বাবার বাড়িতে চলে যায়। তিনদিন আগে আজিবর শ্বশুরবাড়ী থেকে তাছমিলাকে নিয়ে বাড়ি ফেরার উদ্দেশ্যে বের হয়। এরপর থেকে নিখোঁজ ছিলেন তাছলিমা।
দেবহাটা থানার ওসি বিপ্লব কুমার সাহা বলেন, সাংসারিক কলহের জেরে স্বামী আজিবর রহমান তার স্ত্রীকে হত্যার পর ওই আমবাগানে ফেলে রাখে বলে পুলিশ প্রাথমিক ভাবে ধারনা করছে। আজিবরকে গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান চলছে। পাশাপাশি হত্যাকান্ডের পিছনে অন্যকোন কারন রয়েছে কিনা সেটিও পুলিশ খতিয়ে দেখছে। লাশটি উদ্ধারের পর ময়না তদন্তের জন্য প্রেরণ করা হয়েছে বলেও জানান ওসি।

সম্পর্কিত পোস্ট

মতামত দিন