শহরের মুনজিতপুরে প্রতি পক্ষের হামলায় আহত-৩ আশঙ্কাজনক একজনকে খুলনায় রিফার্ড

কর্তৃক ferozsatkhira
০ মন্তব্য 454 ভিউজ

স্টাফ রিপোর্টার ঃ
সাতক্ষীরা শহরে পাকা প্রাচীর দেওয়াকে কেন্দ্র করে প্রতি পক্ষের হামলায় ৩ জন মারাত্মকভাবে আহত হয়েছে।ঘটনাটি শনিবার বেলা ১১ টার দিকে পৌর সভার মুনজিতপুর নামক এলাকায় ঘটে। আহত ব্যক্তিরা হলেন মুনজিতপুর এলাকার মৃত এরবান আলীর পুত্র শেখ সামিউল ইসলাম (৫০), পলাশপোল এলাকার আহমদ আলীর পুত্র মো. সাজেদুর রহমান উজ্জ্বল (৪০), মৃত আব্দুল বারেক গাজীর পুত্র মোস্তাফিজুর রহমান তুষার (৪৫)। ঘটনা সুত্রে জানাযায়, সাতক্ষীরা পৌরসভার মুনজিতপুর এলাকার সামিউল ইসলামের জমির সীমানায় একই এলাকার খোদাবক্সের পুত্র মো. শফিকুল আলম, আব্দুল গফফারের পুত্র সুমন ও কাটিয়া সরকার পাড়া এলাকার কলিক, পলাশসহ ১০ থেকে ১২ জন ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী জোরপূর্বক পাকা প্রাচীর নির্মাণের চেষ্টা করছিল। শেখ শামিউল ইসলাম তার জায়গায় প্রাচীর নির্মাণ বন্ধ করার কথা বললে তার উপরে একই এলাকার খোদাবক্সের পুত্র মো. শফিকুল আলম, আব্দুল গফফারের পুত্র সুমন ও কাটিয়া সরকার পাড়া এলাকার কলিক, পলাশসহ ১০ থেকে ১২ জন ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্র শস্ত্রে সজ্জিত হয়ে অতর্কিত হামলা চালায়। এতে সামিউল ইসলামের মাথায় মারাত্মক জখম হয়। তার নাক মুখ দিয়ে রক্ত বের হয়। আহত অবস্থায় সাতক্ষীরা সদর থানায় গেলে সদর থানা কতৃপক্ষ তাদের সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে পাঠান। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত আহত ৩ জনের মধ্যে দুই জনের অবস্থা আশঙ্কা জনক ছিলো। আহতদের মধ্যে সামিউল ইসলাম নামের এক ব্যক্তির অবস্থার অবনতি হলে সদর হাসপাতাল কতৃপক্ষ খুলনায় প্রেরন করেন। এ দিকে পুলিশ ও একই এলাকার কাউন্সিলর ঘটনা স্থলে যেয়ে কাজ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত দেয়।
বিষয়ে মো. শফিকুল আলম জানান, কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে সামান্য হাতাহাতি হয়েছে। এ দিকে আহত সামিউল ইসলামের পরিবার এব্যাপারে
হামলাকারীদের বিরুদ্ধে তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নিতে
নবাগত পুলিশ সুপারের নিকট আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

সম্পর্কিত পোস্ট

মতামত দিন