সাতক্ষীরার ঘোনা ইউনিয়নে ছনকা বিলে সন্ত্রাসী ভূমিদস্যু আব্দুল কাদের’র বিরুদ্ধে ৪০০ বিঘা জমি দখলের অভিযোগ

কর্তৃক X88131psUBMW
০ মন্তব্য 223 ভিউজ

নিজস্ব প্রতিনিধি ঃ সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ঘোনা ইউনিয়নের ছনকা বিলে ১০০
জনের ৪০০ বিঘা জমি জোরপূর্বক দখলে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী
জমির মালিক গণের পক্ষে বিষয়টি জানিয়ে সাতক্ষীরা সদর থানায় একটি লিখিত
অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। শুক্রবার (০৪ জুন) সদরের ঘোনা ইউনিয়নের ছনকা
গ্রামের মৃত আহম্মদ আলীর ছেলে ভুক্তভোগী মো. ওলিউর রহমান বাদী হয়ে
ভাড়–খালী গ্রামের মৃত সামালী মোড়লের ছেলে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ নেতা
ভূমিদস্যু মো. আব্দুল কাদেরকে আসামী করে সাতক্ষীরা সদর থানায় একটি লিখিত
অভিযোগ দাখিল করেছেন। অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ঘোনা ইউনিয়নের ছনকা
গ্রামের মো. ওলিউর রহমান,তজিবর রহমান, আফসার আলী, আব্দুল মাজেদ, রফিকুল
ইসলাম ও মোহাম্মদ আলীসহ অনুমান ১০০ জন ব্যক্তির ২৩নং ছনকা মালিনীর বিলে
অনুমান ৪০০ বিঘা জমি আছে। জমি উক্ত বিবাদীসহ বাদীরা যৌথভাবে মৎস্য ও ধান
চাষ করে আসছিল। কিন্তু লোভী ও সন্ত্রাসী ভূমিদস্যু মো. আব্দুল কাদের
আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত থাকায় সে প্রভাব খাটিয়ে আলিপুর ও বহেরা
এলাকার সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে জোর পূর্বক জমির মালিকদের কোন টাকা-পয়সা না
দিয়ে উক্ত জমি দখল করে নিজের দাবী করছে। ৩০/০৫/২০২১ তারিখে ঐ জমিতে নোনা
পানি তুলে ইতিমধ্যে জমির উর্বরতা নষ্ট করে দিয়েছে। ঘোনা, কুশখালী,
শিবপুরসহ কয়েকটি ইউনিয়নের পানি প্রবাহের খালটিও দখল করে নিয়েছে সে।

যে
কারণে কয়েকটি ইউনিয়নের মানুষ এই আব্দুল কাদের’র রোষাণলে পড়ে বর্ষা মৌসুমে
স্থায়ী জলাবদ্ধতার স্বীকার হয় এবং দুইটি ফসল থেকে বঞ্চিত হয় হাজার হাজার
মানুষ। ভূক্তভোগি জমির মালিকরা এই জমিতে আসলে খুন-জখমসহ তাদের প্রাণে
মেরে লাশ খালে ভাসিয়ে দিবে বলেও হুমকি দিয়েছে আব্দুল কাদের ও তার
সন্ত্রাসী বাহিনী। বিবাদীর কাছে ভূক্তভোগিদের পাওনা ১৪ লক্ষ টাকা চাহিলে
মেরে হাত পা ভেঙ্গে দেওয়ার হুমকি প্রদর্শণ করছে সে ও তার বাহিনী। এছাড়াও
৫লক্ষ টাকা দিয়ে তৈরী স্থানীয় এলাকাবাসীর সহযোগিতায় দেওয়া বাঁধ ভেঙ্গে
দিয়ে ক্ষতি সাধন করেছে। যে কারণে তার ভয়ে অনেক জমির মালিকরা এখন প্রাণের
ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। কয়েকবার স্থানীয় পর্যায়ে শালিস করা হলেও সে শালিস
না মেনে প্রভাব ও গায়ের জোর খাটিয়ে যাচ্ছে। এব্যাপারে সাতক্ষীরা সদর
থানার অফিসার ইনচার্জ দেলোয়ার হুসেন বলেন, লিখিত অভিযোগটি সরেজমিনে তদন্ত
করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। সচেতন মহল ও ভূক্তভোগি অসহায় জমির মালিকরা
যাহাতে তাদের নিজস্ব জমি ফেরত ও দখলে যেতে পারে সেব্যাপারে সাতক্ষীরা
জেলা পুলিশ সুপারের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

সম্পর্কিত পোস্ট

মতামত দিন