মোঃ আকবর হোসেন,তালা ঃ
সাতক্ষীরার তালায় আইনশৃংখলা বাহিনীর যৌথ অভিযানে ও এলাকাবাসির সহযোগীতায় ভুয়া এনএসআই কর্মকর্তাকে আটক করা হয়েছে।
মঙ্গলবার (২৫ মে) সকালে তালা উপজেলার ইসলামকাটি ইউনিয়নের সুজনসাহা এলাকা হতে প্রতারণার সময় সাতক্ষীরা এনএসআই তাকে আটক করে। আটককৃত ব্যক্তি হলেন, খুলনা বিভাগের ডুমুরিয়া উপজেলার নরনিয়া গ্রামের আরশাফ আলী মোড়লের পুত্র মুজাহিদ হোসেন (৩২)। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময়ে চাকরী দেওয়া, জমি ও বাড়ী ক্রয় এবং হজে¦ পাঠানোর কথা বলে, বিভিন্ন ভাবে কয়েকজনের নিকট হতে প্রতারণা করে ৪০ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ রয়েছে।
সাতক্ষীরা এনএসআই সুত্রে জানা যায়, প্রতারক মুজাহিদ হোসেন একজন পেশাদার প্রতারক। সে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন জেলা ও উপজেলায় সরল ও সাদাসিদা মানুষকে তার্গেট করে, বিভিন্ন প্রলোভোন দেখিয়ে সাধারণ মানুষকে ভুল বুঝিয়ে লোভে ফেলে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিতো। তার ব্যবহৃত মোবাইল থেকে অনেক গোপন তথ্য পাওয়া গেছে বলে এই সুত্রটি জানান। তবে তদন্তের সাথে সেটি জানাতে অস্বীকার করেন এই অফিস কর্মকর্তা।
এ বিষয়ে ভুক্তভোগীরা বলেন, মুজাহিদ বিভিন্ন সময়ে তার ভাই গোয়েন্দা অফিসার ও তার চাচা সচিব আছে বলে তার নাম ভাংগিয়ে টাকা নেয়। সচিব এর সাথে ভুক্তভোগীদের কথাও বলিয়ে দেয়।
এ ব্যাপারে উপজেলার ইসলামকাটি গ্রামের নিছার আলী সরদারের ছেলে আলতাফ হোসেন (৪০) জানান, প্রতারক মোজাহিদ এনএসআই পরিচয় দিয়ে প্রায় এক বছর ধরে চাকরী, বাড়ী কিনে দেওয়া ও বিদেশ পাঠানো এবং হজে¦ পাঠানোর কথা বলে আমি আমার ভাই শাহিনুর ও ইসলামকাটি গ্রামের দেলবার আলীর ছেলে শফিকুল এর নিকট থেকে চার কিস্তিতে ১৩ লাখ নিয়েছে। এছাড়া ডুমুরিয়া এলাকার রোস্তম মোল্লার পুত্র হালিম মোল্যা, ডুমুরিয়ার কুলবাড়িয়া গ্রামের গফুর শেখের ছেলে মোস্তফা কামাল, একই গ্রামের এজাহার আলীর পুত্র গণি মোল্যা এই তিন জনের নিকট থেকে ২৮ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে প্রতারক মুজাহিদ। এসময় ভুক্তভোগীরা প্রতারক মুজাহিদ নিকট হতে টাকা আদায়সহ তার কঠিন শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।
তালা থানার অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) মেহেদী রাসেল জানান, তালার ইসলামকাটি এলাকা থেকে প্রতারক মোজাহিদ প্রতারণা করে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে প্রায় ৪০ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। মঙ্গলবার সকালে সুজনশাহা এলাকায় প্রতারণা করে টাকা নেওয়ার সময় এলাকাবাসির সহযোগীতায় সাতক্ষীরা এনএসআই তাকে আটক করে তালা থানা পুলিশে সোপর্দ করেন। পরে তাকে সাতক্ষীরা ডিবিতে হস্তান্তর করা হয়েছে।

সম্পর্কিত পোস্ট

মতামত দিন