সাতক্ষীরায় চুরির অপবাদে গাছে বেধে নির্যাতন পুলিশ কতৃক উদ্ধার

কর্তৃক ferozsatkhira
০ মন্তব্য 5 ভিউজ

আবু সাঈদ সাতক্ষীরা : সাতক্ষীরার পাটকেলঘাটায় চুরির অপবাদে সাইদুর রহমান নামের এক নিরীহ ব্যক্তিকে গাছে বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে উদ্ধার করে। এদিকে, বেদম মারপিটের শিকার তালা উপজেলার রাঢ়ীপাড়া গ্রামের আজগর আলী সানার পুত্র সাইদুর রহমান (৩৫) তালা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। পূর্ব শত্রুতার জের ধরে চুরির মিথ্যা অপবাদে একই গ্রামের রেজাউল ইসলাম ময়নাসহ কয়েকজন ব‍্যাক্তি বর্বরোচিত হামলা চালায় বলে জানান। চিকিৎসাধীন সাইদুর রহমান জানান, তিনি কৃষি কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করেন। একই গ্রামের রেজাউল ইসলাম ময়নার কাছে তিনি ৫ হাজার টাকা পেতেন। উক্ত টাকা চাইলে তিনি বিভিন্ন তালবাহানা করতেন। এক পর্যায়ে গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর উক্ত টাকা চাইতে গেলে রেজাউল তার বাড়ির মটর চুরি হওয়ার অপবাদ দেয় তাকে। এরপর তুচ্ছ ঘটনায় ময়নার নেতৃত্বে একই এলাকার সোবহান মোল্যা, সাগর মোড়ল, হাশেম মোড়ল, একরামুল, জসিম, সজীবসহ কয়েকজন চুরির অপবাদ দিয়ে তাকে একটি গাছের সাথে বেঁধে অমানুষিক নির্যাতন চালান। এ সময় সাইদুরের স্ত্রী লিলিমা খাতুন ও মা জাহানারা বেগম দুর্বৃত্তদের পা জড়িয়ে ধরলেও তারা নির্যাতন চালাতে থাকেন। পরবর্তীতে পাটকেলঘাটা থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে রাতেই তাকে উদ্ধার করেন। পরদিন শুক্রবার সকালে পুলিশ সাইদুর রহমানকে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের জিম্মায় দেন। এ সময় পরিবারের লোকজন তাকে তালা হাসপাতালে ভর্তি করে। হাসপাতালের চিকিৎসকদের পরামর্শ মোতাবেক দ্রুত তাকে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে বেশ কয়েকটি পরীক্ষা করাতে হবে বলে জানা গেছে।
তালা হাসপাতালের ডাঃ রাজীব সরদার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
এদিকে, রেজাউল ইসলাম ময়নার সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।
পাটকেলঘাটা থানার এস.আই আমির সোমবার গনমাধ‍্যম কর্মীদের জানান, সাইদুর রহমান কে আহত অবস্থায় রাঢ়ীপাড়া গ্রাম থেকে উদ্ধার করা হয়েছে।
২৩/১/২৩

সম্পর্কিত পোস্ট

মতামত দিন