সাতক্ষীরা প্রতিনিধিঃ
সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার হিজলডাঙ্গা বিলের মাছসহ ৪(চার) লক্ষ টাকার মালামাল লুটপাট করে ঘেরের লিচ অনাত্র প্রদানের অভিযোগ উঠেছে জমির মালিক শচীন্দ্র নাথ সরকারের (৬০) বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ১৮ই মার্চ ঘটেছে বলে জানাযায়। ঘটনা সূত্রে জানা যায়, সাতক্ষীরা সদরের বাটকেখালী গ্রামের আব্দুল লতিফ সরদারের পুত্র মােঃ সাইদুর রহমানগংরা দেবহাটার হিজল ডাঙ্গা গ্রামের মৃত শুববিলার পুত্র শচীন্দ্র নাথ সরকার ( ৬০ ) গংদের নিকট থেকে গত ১২/০১/২০২১ ইং তারিখে ৬০ বিঘা ঘের লিজ নেয়। এবং ৩,১০,০০০ / – ( তিন লক্ষ দশ হাজার ) টাকা প্রদান করে ঘেরে মাছ প্রদান করে। কিন্তু শচীন্দ্র নাথ সরকার ষড়যন্ত্র করে বেশি টাকার অফার পেয়ে অন্যাত্র লীজ দিয়ে দেয়। গত ১৯/০৩/২০২১ ইং তারিখে লীজ গ্রহনকারী সাইদুরকে না জানিয়ে শচীন্দ্র নাথ ও আশাশুনি উপজেলার মহাদেবের পুত্র সুশান্ত কুমার ( ৪২ ) , সদর উপজেলার গাভা গ্রামের মৃত ইমান আলীর পুত্র মােঃ মােকছেদ (৬০) এর নেতৃত্বে ৩,০০,০০০ / – ( তিন লক্ষ ) লক্ষাধিক টাকার বেশি মাছ ও মালামাল লুটপাট করে আত্বসাৎ করে। ঘেরে থাকা ৩ টি ঘেরের বাসা , ১ টি নলকূপ , ৩ ইঞ্চি শ্যালাে মেশিন ১ টি , ৬ ও ৫ ইঞ্চি মেশিনের ২ টি পাম্প সহ যাবতীয় মালামাল শচীন্দ্রনাথ সরকারের নেতৃত্বে তারা আত্মমসাৎ করে নিয়ে যায়। যার আনুমানিক মূল্য ৪ (চার) লক্ষ টাকা।

লীজ গ্রহনকারী সাইদুর জানান, শচীন্দ্র নাথদের কাছে আমার জিনিসপত্র ঘেরের তলার মাছ বিক্রয়ের টাকা চাইলে বিবাদীরা আমাকে খুন জখম করার হুমকি প্রদান করে । বর্তমানে আমি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি । কতৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করছি। এ বিষয় মোকছেদ ও সুশান্তের কাছে জানতে চাইলে বলেন মাছ সাইদুররা দিয়েছিল জানি।এবং ঘেরে পানিও উঠিয়েছিল সে। শচীন্দ্র নাথ সরকার আমাদের মাছ ধরতে বলেছে তাই পানি সেচে মাছ ধরেছি। এ বিষয় জানতে শচীন্দ্র নাথ সরকারের নং ০১৭২৪২৩৩৫৫৯ ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।
20/3/21

সম্পর্কিত পোস্ট

মতামত দিন